Health

জেনেটিক রোগ কাকে বলে? কত প্রকার ও কি কি?

সহজ ভাষায় বলতে গেলে, জিনে মিউটেশন এর কারণে একটি মানুষের শরীরে যে সকল রোগ হয়। সেই গুলো কে বলা হয়ে থাকে, জেনেটিক রোগ। তো এই ধরনের রোগ গুলো বংশানুক্রমে হয়ে থাকে। যেমন ধরুন, আপনি একজন পিতা মাতার সন্তান। এবং যদি আপনার সেই বাবা-মায়ের কোন রোগ আপনি সন্তান হয়ে বহন করেন। তখন সেই রোগ কে বলা হবে, জেনেটিক রোগ। আর বর্তমান সময়ে আপনি এমন অনেক মানুষ কে খুঁজে পাবেন। যারা মূলত এই ধরনের বংশানুক্রমিক জেনেটিক রোগে আক্রান্ত হয়েছে। তবে আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন। যারা মূলত সঠিক তথ্য জানেনা যে, জেনেটিক রোগ কাকে বলে। আর এই বিষয়টি কে জানিয়ে দেয়ার জন্যই মূলত আজকের এই আর্টিকেল টি লেখা হয়েছে।

জেনেটিক রোগ কাকে বলে

উপরের আলোচনাতে আমি আপনাকে বলেছি যে। যখন কোন একজন মানুষের শরীরে জিনে মিউটেশন এর কারণে বিভিন্ন ধরনের রোগ ব্যাধি হয়। তাকে বলা হয়ে থাকে, জেনেটিক রোগ। অর্থাৎ যখন বংশানুক্রমে কোন একটি পরিবারের উত্তরসূরীর যে রোগ গুলো ছিল। সেই রোগ গুলো যখন তার পরবর্তী প্রজন্মে আসা মানুষদের দেহে বসবাস করে। তখন তাকে বলা হয় জেনেটিক রোগ।

See also  অ্যাজমা রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার

অর্থাৎ এই ধরনের রোগ গুলো বংশানুক্রমে হয়ে থাকে। যেমন ধরুন, আপনার পরিবারে আপনার দাদার বা দাদীর যে রোগ ছিল। সেটা আপনার বাবা অথবা মায়ের মধ্যে রয়েছে। এবং পরবর্তী সময়ে আপনার শরীরের মধ্যে সেই রোগ গুলো এখনও অবস্থান করে আছে। আর এই ধরনের রোগ কে বলা হয়ে থাকে, জেনেটিক রোগ।

জেনেটিক রোগ কত প্রকার ও কি কি?

এতক্ষণের আলোচনা থেকে আপনি জানতে পেরেছেন যে জেনেটিক রোগ কাকে বলে। তবে এই বিষয়টি যেন পাশাপাশি এখন আপনাকে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে জেনে নিতে হবে। আর সেটি হল এই জেনেটিক রোগ কত প্রকার ও কি কি। তো আপনি যদি একান্ত ভাবেই জেনেটিক রোগ কত প্রকার সে সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে আমি আপনাকে কোন সঠিক তথ্য দিতে পারবো না। কারণ বর্তমান সময়ে অনেক ধরনের জেনেটিক রোগ রয়েছে। যেমন:

  1. সিস্টিক ফাইব্রোসিস
  2. হান্টিংটনের রোগ
  3. থ্যালাসেমিয়া
  4. ডাউন সিনড্রোম
  5. Tay-Sachs রোগ

তো উপরে আপনি যে পাঁচ প্রকারের রোগ এর নাম দেখতে পাচ্ছেন। এগুলো হল জেনেটিক রোগ। তবে একজন মানুষের শরীরে শুধুমাত্র এই পাঁচ প্রকারের জেনেটিক রোগ রয়েছে। বিষয়টা এমন নয় বরং এর বাইরেও আপনি আরো বিভিন্ন ধরনের জেনেটিক রোগ সম্পর্কে জানতে পারবেন। তবে বর্তমান সময়ে যেসব জেনেটিক রোগ পরিচিত হয়েছে। সে গুলো কে আমি উপরে উল্লেখ করার চেষ্টা করেছি।

See also  অ্যাজমা রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button